অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ | Atul Maheshwari Scholarship in Bengali

আমাদের ভারতবর্ষে নিঃসন্দেহে মেধাবী শিক্ষার্থীর অভাব নেই, অভাব আছে পর্যাপ্ত অর্থের। অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ এই ধরনের শিক্ষার্থীদের উৎসাহ ও আর্থিক সাহায্য প্রদান করে এই সমস্যাটির সমাধান করেছে। আর্থিকভাবে দুর্বল পটভূমির শিক্ষার্থীরা এই স্কলারশিপের অধীনে বিশেষ সুবিধা পায়।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ প্রতিবছর অমর উজালা ফাউন্ডেশন (AUF) দ্বারা পরিচালিত হয়। এই অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ সর্বপ্রথম ২০১৪ সালে এই অমর উজালা ফাউন্ডেশন (AUF) দ্বারা চালু হয়েছিল। 

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ প্রধানত নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রদান করা হয়। এই স্কলারশিপে একজন শিক্ষার্থী বার্ষিক ৩০,০০০ থেকে ৫০,০০০০ টাকা পর্যন্ত পেতে পারে।

শিক্ষার্থীদের এই স্কলারশিপ পেতে হলে নির্দিষ্ট যোগ্যতার শর্তগুলি পূরণ করার পাশাপাশি একটি লিখিত পরীক্ষাও দিতে হয়। আজকের প্রতিবেদনে অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপের যোগ্যতার শর্তাবলী, আবেদন প্রক্রিয়া, গুরুত্বপূর্ণ নথি সহ সমস্ত তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

Atul Maheshwari Scholarship Details in Bengali

Atul Maheshwari Scholarship in Bengali

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ

স্কলারশিপের নামঅতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ
কবে প্রথম শুরু হয় ?২০১৪ সালে
কে প্রদান করেন ?অমর উজালা ফাউন্ডেশন (AUF)
নির্বাচন পদ্ধতিস্কলারশিপ টেস্ট  ও ইন্টারভিউ ক্লিয়ার
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটhttps://foundation.amarujala.com/

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ এর উদ্দেশ্য

(1) আর্থিকভাবে দুর্বল অথচ মেধাবী শিক্ষার্থীদের এক উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়ার লক্ষে এই স্কলারশিপ প্রদান করা হয়।

(2) নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের বার্ষিক ৩০,০০০ থেকে ৫০,০০০ টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান।

(3) স্কলারশিপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করে তোলা।

(4) পড়াশোনার কারণে শিক্ষার্থীদের ওপর তৈরি হওয়া আর্থিক বোঝা থেকে মুক্তি দান।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ এর সুবিধা

মেধা পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা এই স্কলারশিপ পাওয়ার যোগ্য হয়ে ওঠে যাতে তারা কোনো আর্থিক বাধার সম্মুখীন না হয়ে তাদের শিক্ষা সম্পূর্ণ করতে পারে। মোট ৩৬ জন শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়, যার মধ্যে ১৮ জন শিক্ষার্থী নবম এবং দশম শ্রেণী থেকে এবং বাকি ১৮ জন শিক্ষার্থী একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী থেকে।

এছাড়াও, দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণী থেকে ২ জন অন্ধ শিক্ষার্থীকে তাদের পড়াশোনা শেষ করার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এই স্কলারশিপে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করা বৃত্তির পরিমাণের সম্পূর্ণ বিবরণ নীচে উল্লেখ করা হয়েছে। 

(1) নবম এবং দশম শ্রেণীর নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ৩০,০০০ টাকা প্রদান করা হয়।

(2) একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ৫০,০০০ টাকা প্রদান করা হয়।

(3) দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণী থেকে ২ জন অন্ধ শিক্ষার্থীকে তাদের পড়াশোনা শেষ করার জন্য আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ এর আবেদনের যোগ্যতা

(1) শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ভারতের বাসিন্দা হতে হবে।

(2) শিক্ষার্থীকে অবশ্যই নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীতে পাঠরত অবস্থায় থাকতে হবে।

(3) শিক্ষার্থীকে তার শেষ বার্ষিক পরীক্ষায় ৬০% নম্বর পেতে হবে।

(4) শিক্ষার্থীর পরিবারের বাৎসরিক আয় ১.৫ লক্ষ টাকার কম হতে হবে।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপের আবেদন পদ্ধতি

(1) প্রথমে শিক্ষার্থীকে উজালা ফাউন্ডেশনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://foundation.amarujala.com  ভিজিট করতে হবে ।

(2) তারপর হোম পেজ থেকে New Here / Sign Up এ ক্লিক করতে হবে।

(3) ইমেল আইডি, মোবাইল নম্বর ইত্যাদি লিখতে হবে।

(4) পাসওয়ার্ড এবং ব্যবহারকারীর নাম সেট করতে হবে।

(5) এরপরে Sign In এ ক্লিক করতে হবে।

(6) এবার রেজিস্ট্রেশন আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিতে হবে।

(7) তারপর AMC Scholarships-এ ক্লিক করতে হবে।

(8) এরপর শিক্ষার্থীকে অনলাইন ফর্মটি পূরণ করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় নথিগুলি আপলোড করতে হবে।

(9) শেষে, Submit বাটনে ক্লিক করতে হবে।

আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

(1) পাসপোর্ট সাইজের ছবি।

(2) জাতি শংসাপত্রের প্রমাণ।

(3) শিক্ষার্থীর দ্বারা আয় শংসাপত্রের প্রমাণ।

(4) আইডি / ঠিকানা প্রমাণ।

(5) গত বছরের মার্কশিট।

(6) শিক্ষার্থীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের প্রমাণ।

(7) অতুল বৃত্তির ফলাফল।

(8) আবাসিক শংসাপত্র।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ নির্বাচন পদ্ধতি

অমর উজালা ফাউন্ডেশন (AUF) অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ বিতরণের আগে একটি নির্বাচন প্রক্রিয়া নির্ধারণ করেছে। অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ এর জন্য সমস্ত শিক্ষার্থীদের নির্বাচনের মাপকাঠি ক্লিয়ার করতে হবে।

শিক্ষার্থীদের প্রথমে অতুল স্কলারশিপ টেস্ট ক্লিয়ার করতে হবে। অতুল মহেশ্বরী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের অমর উজালা ফাউন্ডেশন কমিটির ইন্টারভিউ ক্লিয়ার করতে হবে। যে সকল শিক্ষার্থীরা উভয়ই ক্লিয়ার করে তারা অতুল মহেশ্বরী বৃত্তির অধীনে পুরষ্কার পায়।

(1) অতুল স্কলারশিপ টেস্ট ক্লিয়ার করতে হবে।

(2) অমর উজালা ফাউন্ডেশন কমিটির ইন্টারভিউ ক্লিয়ার করতে হবে।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ এর পরীক্ষার প্যাটার্ন

  • পরীক্ষার মোড অফলাইন হবে।
  • দুটি পেপার থাকবে, পেপার ১ ও পেপার ২।
  • ১ম পেপারে ৬০টি প্রশ্ন থাকে যা বহুনির্বাচনী (MCQ) প্রশ্ন।
  • ২য় পেপারে  বর্ণনামূলক প্রকার থাকবে।
  • কোনো নেগেটিভ মার্কিং নেই।
  • উভয় পেপারের জন্য সময় থাকে 90 মিনিট।

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ পরীক্ষার সিলেবাস

অমর উজালা ফাউন্ডেশন দ্বারা প্রদত্ত সিলেবাসটি NCERT এবং ICSE বইয়ের উপর ভিত্তি করে তৈরি। সুতরাং, আপনি যদি পরীক্ষার চেষ্টা করছেন তবে আপনি চাইলে এই বইগুলি অনুসরণ করতে পারেন। সাধারণ সিলেবাস হল:

  • অংক
  • যুক্তি
  • সাধারন বিজ্ঞান
  • সাধারণ জ্ঞান
  • হিন্দি
  • কম্পিউটার জ্ঞান

অতুল মাহেশ্বরী স্কলারশিপ পরীক্ষার শর্তাবলী

সমস্ত আগ্রহী শিক্ষার্থীদের সফলভাবে এই মেধা স্কলারশিপ  লাভ করার জন্য নির্দিষ্ট শর্তাবলী মেনে চলতে হবে। স্কলারশিপের কিছু শর্তাবলী নিচে উল্লেখ করা হল যা একজন আবেদনকারীকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে।

  • এই স্কলারশিপের অধীনে নির্বাচিত অন্ধ শিক্ষার্থীদের অবশ্যই নীচের একটি শ্রেণিতে অধ্যয়ন করতে হবে। এছাড়াও, আবেদনকারীরা লিখিত পরীক্ষার সময় সহকারীদের সাথে আসতে পারেন।
  • আবেদনকারীদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে তাদের একটি আবেদনপত্রের সাথে একটি ইমেল আইডি এবং মোবাইল নম্বর জমা দিতে হবে।
  • আবেদনপত্র পূরণ করার সময় আপলোড করা নথিগুলির আকার ১ MB এর বেশি হতে হবে।
  • এছাড়াও, যোগ্য শিক্ষার্থীরা যাদের লিখিত পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে তাদের অবশ্যই তাদের প্রবেশপত্রের সাথে বরাদ্দকৃত স্থানে নিয়ে যেতে হবে।
  • আবেদনকারীদের প্রবেশপত্র তাদের কাছে ইমেইলে পাঠানো হয়।
  • প্রার্থীদের 57টি শহরের তালিকা থেকে তাদের পরীক্ষার কেন্দ্র নির্বাচন করার বিকল্প দেওয়া হয়ে থাকে।