আঁধার কার্ডের ভুল কতবার সংশোধন করা যাবে?

আঁধার কার্ডের ভুল থাকলে তা যতটা সম্ভব তাড়াতাড়ি সংশোধন বা ঠিক করে নেওয়া দরকার। কেননা ভোটার কার্ড ,পাসপোর্ট, গাড়ির লাইসেন্স ইত্যাদি নাগরিক প্রমাণ হিসেবে যাই থাকুক না কেন বর্তমান সময়ে আঁধার কার্ড একটি গুরুত্বপূর্ণ পরিচয়পত্র। ব্যাংকের কোন কাজ, সরকারি কোনো প্রকল্পের সুবিধা, প্রভিডেন্ট ফান্ড, ট্যাক্স বিষয়ক কাজ যাই হোক না কেন সব ক্ষেত্রে আধার কার্ড একটি গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র হিসেবে গণ্য হচ্ছে। 

আমাদের আধার কার্ডে সমস্ত তথ্য নির্ভুল থাকুক এটা দেখার দায়িত্ব আমাদের। আমাদের প্রত্যেকের কাছে যে আধার কার্ড থাকে সেখানে অনেক সময় কোনো ভুল তথ্য থাকে। সেটা আমাদের নামের বানান হতে পারে বা জন্ম তারিখ বা অন্য কোনো তথ্য সেগুলো আমাদের ঠিক করতে হবে। সেগুলো ঠিক করার জন্য আমাদের যেতে হয় আধার কার্ড এনরোলমন্ট সেন্টারে। সেখানে গিয়ে আধার এনরোলমেন্ট অফিসারের সঙ্গে কথা বলতে হবে। তারপর আধার কার্ডের ভুলটি দেখিয়ে দিলে সহজে আপনার আধার কার্ড তথ্য টি নির্ভুল করে দেবে।

এছাড়া আপনার আধার কার্ডের সঙ্গে মোবাইল নাম্বার অ্যাড করা না থাকলে সেটি যত দ্রুত সম্ভব লিংক করে নেওয়ায় ভালো। আধার কার্ডের ভুল সংশোধন সাধারণত দুই ধরনের এক হচ্ছে, ডেমোগ্রাফিক তথ্য (Demographic Information) এবং দুই, বায়োমেট্রিক তথ্য (Biometric information)

(1) ডেমোগ্রাফিক তথ্য (Demographic Information)

এর এর মধ্যে পড়ছে নাম, ঠিকানা, জন্ম তারিখ ,মোবাইল নাম্বার, ইমেল আইডি, লিঙ্গ ইত্যাদি তথ্য।

(2) বায়োমেট্রিক তথ্য (Biometric information)

মুখের ছবি, আঙ্গুল ছাপ, চোখের মণির ছবি ইত্যাদি।

এই তথ্যগুলোর মধ্যে কিছু তথ্য সংশোধন করতে হয় এবং কিছু তথ্য আপডেট করতে হয়। এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমরা আমাদের আঁধার কার্ডের ভুল সংশোধন কতবার করতে পারবো?

আঁধার কার্ডের ভুল কতবার সংশোধন করা যাবে?

এই আধার কার্ড নিয়ে নানান প্রশ্ন আছে যে আধার কার্ডের ভুল কতবার সংশোধন করা যায়। আধার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, আধার কার্ডের কোন ধরনের তথ্যের সংশোধন করা হবে অর্থাৎ ডেমোগ্রাফিক না বায়োমেট্রিক তার উপর নির্ভর করবে কতবার আধার কার্ডের ভুল সংশোধন করা যাবে। 

যেমন নামের ক্ষেত্রে ছোটখাটো ভুল থাকে তাহলে সেটা দুবার পর্যন্ত সংশোধন করা যাবে। লিঙ্গ পরিচয় কিংবা জন্মের তারিখ এই ধরনের সংশোধন মাত্র একবার আপডেট করা যাবে। ঠিকানা বদলের ক্ষেত্রে সেটি একাধিকবার করা যাবে। এই সংশোধন গুলো সব আঁধার এনরোলমেন্ট সেন্টারে গিয়ে সংশোধন করতে হবে। 

এছাড়া এগুলো নিজের মোবাইলে এম আধার অ্যাপসের মাধ্যমে সহজেই সংশোধন করা যাবে। M Aadhaar অ্যাপ এর মাধ্যমে। এই M Aadhaar অ্যাপ টি ব্যবহার করতে হলে আপনার আধার কার্ডের সঙ্গে একটি নিজস্ব মোবাইল নাম্বার সংযুক্ত থাকতে হবে। এই আধারের সাথে মোবাইল সংযুক্ত করন আধার কার্ড এনরলমেন্ট সেন্টারে গিয়েই করতে হবে।

আঁধার কার্ডের তথ্য সংশোধনের সীমা পার হলে করণীয়

ধরা যাক কারোর আধার কার্ডে নাম, লিঙ্গ,ঠিকানা, জন্ম তারিখ বা অন্য কোনো তথ্য একবার সংশোধন করার পরেও ভুল রয়ে গেছে। তখন আপনি কি করবেন? আপনাকে জানিয়ে রাখি, একটি উপায়ের মাধ্যমে আপনি আপনার আধার কার্ড সংশোধন সীমা ছাড়িয়ে যাওয়ার পর আধার কার্ড সংশোধন করতে পারবেন। কিভাবে বলছি।

এর জন্য আপনাকে আধার কার্ড সংক্রান্ত এনরোলমেন্ট অফিসে গিয়ে বলতে হবে যে আমার আধার কার্ড ভুল সংশোধনের সীমা পেরিয়ে গিয়েছে। অফিস থেকে আধার কার্ডের মেইন অফিসে একটি ইমেইলে চিঠি লিখে দেবে। এবং সেখানে আঁধার কার্ডের কোন তথ্য সংশোধনের প্রয়োজন তা স্পষ্ট জানাতে হবে এবং সংশোধনের প্রমাণপত্র হিসেবে দরকারি নথিপত্র জমা করতে হবে।

Email পাঠাতে হবে [email protected]

👉 সরকারি প্রকল্প, সরকারি সুবিধার নতুন নতুন তথ্য মিস না করতে চাইলে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে Join হয়ে থাকুন

🔥 এগুলোও পড়ুন 👇👇

👉 আপনার রেশন কার্ডের eKYC করা আছে তো? চেক করুন

👉 ঘরে বসেই অনলাইনে ভোটার কার্ডের ভুল সংশোধন

👉 রাজ্যের 50 হাজার ছাত্র-ছাত্রী পাবে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড