প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা 2022- সুবিধা, আবেদন প্রক্রিয়া | Pradhan Mantri Rojgar Yojana, Application Form

দেশে অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা (Pradhan Mantri Rojgar Yojana) শুরু করা হয়েছিল। এই যোজনা ১৯৯৩ সালে দেশের বেকার যুবক যুবতীদের নিয়ে শুরু হয়। সরকার বেকার এবং অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল শ্রেণীর বেকার যুবকদের কম সুদে লোন দেবে।

তারপর প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা আওতায় তাদের ১০ থেকে ১৫ দিনে একটি ট্রেনিং করাবে। ট্রেনিং এ উদীয়মান ব্যবসা, উৎপাদনকারী, উদ্যক্ত পরিষেবা, ইত্যাদি সেক্টরে গুলি নিয়ে আলোচনা করা হবে। এই ঋণ তারা তাদের ব্যবসা ক্ষেত্রে কাজে লাগাবে।

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনার উদ্দেশ্য

প্রধানমন্ত্রীর রোজগার যোজনা মূলক হলো দেশের যুবক যুবতীদের সরকারি কিছু সাহায্যে নিজস্ব ব্যবসা তৈরি করা। ফলে দেশের বেকারত্ব কমে যাবে এবং দেশ আর্থিকভাবে স্বচ্ছল হবে। প্রধানমন্ত্রীর রোজগার যোজনা বেকার যুবক যুবতীদের স্বাবলম্বী হওয়ার সাথে সাথে এই সামাজিক উন্নয়নমূলক উদ্যোগ তাদের আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রীর রোজগার যোজনা আওতায় আসলে দেশের সমস্ত বেকার যুবক-যুবতী কাজ খুঁজে পাবে।

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনার সুবিধা

  1. দেশের বেকারত্ব হ্রাস পাবে এবং কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে।
  2. প্রধানমন্ত্রীর রোজগার যোজনায় বেকার যুবকদের কম সুদে লোন দেওয়া হবে।
  3. বেকার যুবক-যুবতীদের 10 থেকে 15 দিনের একটি দক্ষতার সহিত ট্রেনিং দেওয়া হবে।
  4. বেকার যুবক দের ব্যবসার ক্ষেত্রে তাদের মোটা টাকা লোন দেওয়া হবে।
  5. দেশের তপশিলি ও অনগ্রসর শ্রেণীর মানুষসহ সকলেই এই সুবিধা পাবেন।

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনায় আবেদনের যোগ্যতা

  1. আবেদনকারীকে ভারতে নাগরিক হতে হবে।
  2. আবেদনকারীর বয়স ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে।
  3. আবেদনকারীর ন্যুনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণী পাশ হতে হবে।
  4. আবেদনকারীকে তিন বছরের বেশি স্থায়ীভাবে বসবাস করতে হবে।
  5. আবেদন কারীর পারিবারিক মাসিক আয় ৪০ হাজার টাকার কম হতে হবে।
  6. যারা এর আগে কোন সরকারি ব্যাংক থেকে লোনের জন্য আবেদন করেনি তারা আবেদন করতে পারবেন।
  7. যেসব বেকার যুবক যুবতী লোন নিয়ে ব্যবসা করছে তাদের ব্যবসার মোট ব্যয় দু লক্ষ টাকার কম হতে হবে।
  8. তপশিলি ও অনগ্রসর শ্রেণীর উপজাতিরা সংরক্ষিতভাবে ২২.৫ শতাংশ ও ২৭ শতাংশ সুবিধা পাবে।

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

  • আধার কার্ড
  • ইনকাম সার্টিফিকেট
  • কাস্ট সার্টিফিকেট
  • বাসিন্দা সার্টিফিকেট
  • আইডেন্টি কার্ড
  • ব্যাংক পাশ বই (সঙ্গে ব্যাংক স্টেটমেন্ট)
  • মোবাইল নাম্বার
  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনায় লোনের পরিমাণ

  1. প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা শিল্পখাতের জন্য ২ লক্ষ টাকা।
  2. ব্যবসা কাজের জন্য ১ লক্ষ টাকা 
  3. কার্যনির্ভর মূলধনের ক্ষেত্রে সর্বাধিক ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন পাওয়া যাবে।

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনায় সুদের হার

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ১২ শতাংশ সুদ লাগবে এবং ২৫ থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত  ১৫.৫ শতাংশ সুদ দিতে হবে। লোনের পরিমাণ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সুদের পরিমাণও বাড়বে।

প্রধানমন্ত্রীর রোজগার যোজনার আওতায় কোন কোন শিল্প স্থাপন করা যাবে

  1. ক্লোথিং ইন্ডাস্ট্রি
  2. কেমিকাল ইন্ডাস্ট্রি
  3. ফরেস্ট ইন্ডাস্ট্রি
  4. মিনারেল ইন্ডাস্ট্রি
  5. এগ্রিকালচার এবং ফুড ইন্ডাস্ট্রি
  6. সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রি
  7. ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্ডাস্ট্রি

প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা আবেদন প্রক্রিয়া

(1) প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনায় আবেদন করার জন্য প্রথমেই অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে। এরপরে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট খুলবে।

(2) ওয়েবসাইট ওপেন হওয়ার পর আবেদন করার ফর্মটি ডাউনলোড করতে হবে। এরপরে আবেদন পত্রটি নাম, আধার নম্বর, মোবাইল নম্বর ইত্যাদি দিয়ে পূরণ করতে হবে।

(3) আবেদনপত্র পূরণ করার পর তার সাথে দরকারি ডকুমেন্টস নিয়ে যে ব্যাংক থেকে আপনি ঋণ নিতে চান সেই ব্যাংকে যেতে হবে এবং আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।

(4) এরপরে আবেদন পত্র এবং ডকুমেন্টসগুলি ব্যাংকের মাধ্যমে যাচাইকরন হবে এবং এক সপ্তাহ পর ব্যাংক আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করবে।

(5) আপনার আবেদনপত্র যদি ব্যাংকের মাধ্যমে Approve করা হয় তাহলে আপনি আপনার ব্যবসা শুরু করার জন্য ব্যাংকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা আওতায় লোন পাবেন। 

Join Telegram Channel: Click Here

More Update: Click Here