SAMARTH (সমর্থ) প্রকল্প কি- কারা পাবে সুবিধা | SAMARTH Scheme Full Details in Bengali

কেন্দ্র সরকার বস্ত্র উৎপাদন শিল্পের উন্নতির জন্য একটি নতুন প্রকল্পের সূচনা করেছে। এই প্রকল্পের নাম হচ্ছে সমর্থ প্রকল্প বা SAMARTH Scheme। আজ আমরা এই লেখনীর মাধ্যমে সমর্থ (SAMARTH) প্রকল্পের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করব। যেমন- সমর্থ প্রকল্প কি? সামর্থ্য প্রকল্পের উদ্দেশ্য কি? এই প্রকল্পের সুবিধা, এই প্রকল্পের আবেদন প্রক্রিয়া ইত্যাদি। যদি আপনি এই প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেতে চান তাহলে আজকের এই লেখাটা সম্পূর্ণ পড়ুন তাহলে বিস্তারিত জানতে পারবেন। 

SAMARTH Scheme Details in Bengali

SAMARTH Scheme Full Details in Bengali

SAMARTH প্রকল্প একনজরে 

SAMARTH Scheme
প্রকল্পের নাম SAMARTH প্রকল্প
ঘোষনার তারিখ 2017, ডিসেম্বর
গাইডলাইন/চালু 2018, এপ্রিল
দপ্তরবস্ত্র মন্ত্রালয় (Ministry of Textile)
উদ্যোক্তা স্মৃতি ইরানি 
হেল্পলাইন নম্বর 1800-258-7150
ইমেল [email protected]
ওয়েবসাইট samarth-textiles.gov.in

SAMARTH প্রকল্পের উদ্দেশ্য  

  • এই প্রকল্পের আওতায় বস্ত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণ (ট্রেনিং) দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণের মূল উদ্দেশ্য হবে তাদের কর্মকুশলতা বৃদ্ধি। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বস্ত্র শিল্পের বিভিন্ন কাজ শেখানো হবে।
  • যে সমস্ত লোকেদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে তাদের বিভিন্ন কোম্পানির মাধ্যমে চাকরির ব্যবস্থা করা হবে। অর্থাৎ প্রথমে ব্যক্তিদের প্রশিক্ষিত করা হবে এবং তাদের চাকরি বা কাজে নিয়োগ করে দেওয়া হবে।
  • এই প্রকল্পের মাধ্যমে সরকারের মূল উদ্দেশ্য হলো যতটা সম্ভব কর্মসংস্থান বাড়ানো।
  • বস্ত্র শিল্পের কাজের সঙ্গে যুক্ত লোকেদের দক্ষ বানিয়ে তারা যাতে অধিক উৎপাদন করতে সক্ষম হয় এবং তাদের রোজগার বৃদ্ধি হয় সেটাও এ প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য।
  • সমর্থ প্রকল্পে মহিলাদেরও অনেকাংশে সুবিধা মিলবে। মহিলাদের রোজগারের সুযোগ বাড়বে এবং মহিলা সশক্তিকরণ বৃদ্ধি পাবে।
  • সমর্থন প্রকল্পের আওতায় তিন বছরে 10 লক্ষ লোককে প্রশিক্ষণ দেওয়ার টার্গেট রাখা হয়েছে। ঐ সমস্ত লোকেদের কৌশলগত প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যাতে তারা আত্মনির্ভর হয়ে ওঠে এবং সময় অপচয় না করে অধিক উৎপাদন এর মাধ্যমে রোজগার বৃদ্ধি পায়।

SAMARTH প্রকল্পের সুবিধা

  • সমর্থ প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের লোকেদের বস্ত্র উৎপাদন সংক্রান্ত কাজ শেখানো হবে।
  • এই প্রকল্পের মাধ্যমে লোকেরা কাজ শেখার পর তারা নিজেদের ব্যবসা শুরু করতে পারবে।
  • কেন্দ্র সরকারের দ্বারা এই প্রকল্পের আওতায় ট্রেনিং প্রাপ্ত লোকেদের চাকরি দেওয়া হবে।
  • কর্মসংস্থান কিছুটা হলেও বাড়বে।
  • বিশ্বের বাজারে ভারতের বস্ত্র বা টেক্সটাইল ব্যবসা অনেকটা জায়গা করে নেবে।
  • এই প্রকল্পের মাধ্যমে মহিলারাও বহুলাংশে সুবিধা পাবে।
  • তিন বছরে 10 লক্ষ লোকেদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার লক্ষ্য রাখা হয়েছে।

SAMARTH প্রকল্প যেসমস্ত রাজ্যে চালু হয়েছে

কেন্দ্র দরকারের দ্বারা SAMARTH প্রকল্প সফলতার সঙ্গে বাস্তবায়ন করার জন্য ভারতের 18 টি রাজ্যে এই প্রকল্প চালু করা হয়েছ। এই রাজ্যগুলির নাম নীচে দেওয়া হল-

1. অরুণাচল প্রদেশ 7. উত্তর প্রদেশ13. ওড়িশা
2. জম্মু কাশ্মীর 8. অন্ধ্র প্রদেশ14. মনিপুর 
3. কেরল9. আসাম 15. হরিয়ানা 
4. মিজোরাম10. মধ্য প্রদেশ16. মেঘালয় 
5. তামিলনাড়ু11. ত্রিপুরা17. ঝাড়খন্ড 
6. তেলেঙ্গানা12. কর্ণাটক 18. উত্তরাখণ্ড 

SAMARTH প্রকল্পে যেসমস্ত কাজের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে

এই প্রকল্পে বস্ত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন কাজ শেখানো হবে, যেমন-

  • পোশাক তৈরি 
  • ধাতু হস্তশিল্প
  • তাঁত বোনা
  • হস্তশিল্প 
  • কার্পেট তৈরি ইত্যাদি 

SAMARTH প্রকল্পে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট

  • আঁধার কার্ড
  • বাসিন্দার প্রমানপত্র 
  • রেশন কার্ড
  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি 
  • মোবাইল নম্বর 

SAMARTH প্রকল্পে আবেদন করার প্রক্রিয়া

সমর্থ প্রকল্পে আবেদন করার জন্য অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। ওখানে আবেদন করার সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া দেওয়া রয়েছে। যেহেতু এই প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গে চালু করা হয়নি তাই বিষয়টি ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। তবে এই প্রকল্পটি কেন্দ্র সরকারের উদ্যোগ হওয়ায় ভারতের নাগরিক হিসেবে জানা দরকার।