স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022- আবেদন পদ্ধতি, টাকার পরিমান | Swami Vivekananda Scholarship Application in Bengali

অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য একটি অন্যতম বিশেষ বৃত্তি হল পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা পরিচালিত স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিনস স্কলারশিপ। শিক্ষার্থীদের কাছে এই স্কলারশিপ বিকাশ ভবন স্কলারশিপ নামেও পরিচিত। 

প্রতিবছর যে সমস্ত শিক্ষার্থীরা মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক বা কলেজের পরীক্ষায় পাশ করে পরবর্তী ক্লাসে ভর্তি হয় তাদের এই স্কলারশিপ প্রদান করা হয়।

এই স্কলারশিপ শিক্ষার্থীদের একটি ভালো শিক্ষা পেতে সাহায্য করে এবং তাদের ওপর চাপানো আর্থিক বোঝা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করে।

এই স্কলারশিপের মূল লক্ষ্য মেধাবী অথচ অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের উচ্চতর শিক্ষার জন্য তাদের আর্থিক সহায়তা প্রদান। বিভিন্ন শিক্ষাগত যোগ্যতার নিরিখে এই স্কলারশিপে আবেদন করলে ১০০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫০০০ টাকা পর্যন্ত পাওয়া যায়। নিচে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর সমস্ত তথ্য জানানো হয়েছে।

Swami Vivekananda Merit-cum-Means Scholarship

Swami Vivekananda Scholarship Application in Bengali

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ একনজরে

স্কলারশিপের নামস্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম স্কলারশিপ বা বিকাশ ভবন স্কলারশিপ
কে সূচনা করেন?রাজ্য সরকার
কীভাবে আবেদন সম্ভব?অনলাইনে
কারা এই সুবিধা পাবেন?মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষায় পাঠরত শিক্ষার্থীরা
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://svmcm.wbhed.gov.in

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর উদ্দেশ্য

(1) এই স্কলারশিপ এর মাধ্যমে মেধাবী অথচ অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল শিক্ষার্থীদের সহায়তা প্রদান করা হয়।

(2) এই স্কলারশিপ শিক্ষার্থীদের মান সম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করবে।

(3) স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার কারণে তাদের উপর চাপানো আর্থিক বোঝা কমবে।

(4) এই স্কলারশিপের মাধ্যমে রাজ্যে সাক্ষরতার হারও বৃদ্ধি পাবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর সুবিধা

  • স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা পরিচালিত হয়।
  • এই স্কলারশিপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের একটি গুনসম্মত উচ্চশিক্ষা সুনিশ্চিত হয়।
  • শিক্ষার্থী যদি মাধ্যমিকে ৬০% নাম্বার পেয়ে পাশ করে তাহলে তাকে প্রতি মাসে ১০০০ টাকা দেওয়া হবে।
  • শিক্ষার্থী যদি উচ্চমাধ্যমিকে ৬০% নাম্বার পেয়ে পাশ করে তাহলে তাকে প্রতি মাসে ১০০০ থেকে ৫০০০ টাকা  দেওয়া হবে।
  • পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের প্রতি মাসে ১৫০০ টাকা দেওয়া হয়।
  • স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের প্রতি মাসে ১০০০ থেকে ৫০০০ টাকা  দেওয়া হবে।
  • Post-graduation শিক্ষার্থীদের প্রতিমাসে ২০০০ থেকে ৫০০০ টাকা দেওয়া হয়।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এ আবেদনের যোগ্যতা

  • স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর আবেদন করার জন্য শিক্ষার্থীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গে স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • শিক্ষার্থীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের যে কোনো স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে হবে।
  • যে সমস্ত শিক্ষার্থী মাধ্যমিকে ৬০% নাম্বার পেয়ে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হবে তারা এখানে আবেদন করতে পারবে।
  • যে সমস্ত শিক্ষার্থী উচ্চমাধ্যমিকে ৬০% নম্বর পায় এবং Under Graduate এর যেকোনো কোর্সে ভর্তি হবে তবেই স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর আবেদন করতে পারবে।
  • শিক্ষার্থী যদি Under Graduate (UG) তে ৫৩% নাম্বার পেয়ে Post Graduation এ ভর্তি হবে তবেই স্কলারশিপ এ আবেদন করতে পারবে।
  • শিক্ষার্থীর পরিবারের বার্ষিক আয় যদি ২.৫ লাখের কম হয় তবেই এখানে আবেদন করা যায়।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর আবেদন পদ্ধতি

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর জন্য আবেদন অনলাইনে করতে হয়। এই স্কলারশিপে কিভাবে আবেদন করা হয় তা নিচে বিস্তারে জানানো হয়েছে-

(1) প্রথমে শিক্ষার্থীকে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। লিঙ্ক দিতে হবে

(2) তারপর, Registration বোতামে ক্লিক করতে হবে।

(3) এরপর Apply Application এ ক্লিক করতে হবে।

(4) এরপরে শিক্ষার্থীকে নিজের নাম, ইমেল আইডি, Date Of Birth, ফোন নাম্বার প্রভৃতি সমস্ত প্রকার তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন করার সময় শিক্ষার্থীকে একটি Password তৈরি করতে হবে যা পরবর্তীতে Login করার সময় দরকার হবে।

(5) রেজিস্ট্রেশন ঠিকঠাক হয়ে যাওয়ার পর শিক্ষার্থীকে একটি Application Id দেওয়া হবে যার মাধ্যমে পরবর্তীতে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে Login করতে পারবে।

(6) এরপর শিক্ষার্থীর Application Id এবং Password দিয়ে Login করার পর আবেদন পদ্ধতি সম্পন্ন করতে অ্যাপ্লিকেশন অপশনে ক্লিক করতে হবে।

(7) তারপর অনলাইনে আবেদন করার জন্য আবেদন পত্রটি ভালোভাবে ফিলাপ করতে হবে এবং শিক্ষার্থীর ছবি স্ক্যান করতে হবে। তার সঙ্গে স্বাক্ষর স্ক্যান করে ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে।

(8) এরপরে শিক্ষার্থীকে সমস্ত প্রকার ফর্মালিটি পূরণ করতে হবে। তবেই শিক্ষার্থীর আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রিনুয়াল (Renewal) করার পদ্ধতি

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিনস স্কলারশিপের Renewal করার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের Application ID ও Password (গত বছর অনলাইন আবেদনের সময় প্রাপ্ত) দিয়ে www.svmcm.wbhed.gov.in ওয়েবসাইটে Login করতে হবে। এরপর উপরে উল্লেখিত ধাপগুলি অনুযায়ী Renewal আবেদন করতে হবে।

বিশেষ দ্রষ্টব্য:- স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রেনুয়াল বা ক্রমাগত পেতে হলে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে প্রত্যেক বার্ষিক পরীক্ষায় ৬০% নম্বর পেতে হবে। তবে মাস্টার্স ডিগ্রিতে ৫৩%  শতাংশ নম্বর গ্রহণযোগ্য।

কোনো শিক্ষার্থী যদি বিশেষ কোনো কারনে এক বছর ড্রপ বা পড়াশোনা ক্রমাগত চালিয়ে রাখতে না পারে তাহলে পরবর্তীতে, এই স্কলারশিপ আবেদন করার সময় উপযুক্ত কারণ দেখিয়ে এই স্কলারশিপটি রেনুয়াল বা ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশন করতে পারে।

যদি কোনো ছাত্রছাত্রী এক বছরেরও অধিক পড়াশোনার সঙ্গে যুক্ত না থাকে তাহলে উক্ত ছাত্র-ছাত্রী স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর এপ্লিকেশন করতে পারবে না। অবশ্য তারা নতুন কোন কোর্সে ভর্তি হলে সেক্ষেত্রে তারা ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশন করে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য যে সমস্ত প্রয়োজনীয় নথিপত্র অনলাইনে আপলোড করতে হবে তা হল-

(1) মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, স্নাতক পরীক্ষার মার্কশীট (প্রয়োজন অনুযায়ী)।

(2) জন্মের তারিখের প্রমান।

(3) শেষ পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড।

(4) নতুন কোর্সে ভর্তির রশিদ ।

(5) শিক্ষার্থীর ভোটার কার্ড, আধার কার্ড, রেশন কার্ড।

(6) ব্যাংকের পাশ বই।

(7) নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির রিসিভ কপি।

(8) পরিবারের বাৎসরিক আয়ের এর প্রমাণপত্র।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ হেল্পলাইন নম্বর

প্রতিবছর পশ্চিমবঙ্গের কয়েক লক্ষ ছাত্র-ছাত্রী স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করে থাকে। আবেদন করার সময় যে কোনো অসুবিধা দূর করতে বিকাশ ভবনের একটি হেল্পলাইন নম্বর দেওয়া হয়েছে।

অনলাইন আবেদন সংক্রান্ত যেকোন প্রশ্ন থাকলে এই নম্বরে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন। বিকাশ ভবন স্কলারশিপ হেল্পলাইন নম্বর- 18001028014, বিকাশ ভবন স্কলারশিপ ইমেল আইডি- [email protected]

Official Website : https://svmcm.wbhed.gov.in