Student Credit Card Update: রাজ্যের 50 হাজার ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড

দুর্গাপুজোর আগে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড নিয়ে বড় ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যের ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চ শিক্ষার জন্য স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড অনেক আগেই ঘোষণা করেছে। স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পড়ুয়াদের কম সুদে লোন দেওয়া হয়। স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের লোন নেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের অনেক সমস্যা সম্মুখীন হতে হয়।

তাছাড়া সমস্ত নথিপত্র ব্যাংকে জমা হওয়ার পরেও অনেক ছাত্র-ছাত্রী সঠিক সময়ে লোন পাচ্ছে না। কেন শিক্ষার্থীরা সঠিক সময়ে লোন পাচ্ছে না ইত্যাদি বিষয়ে নবান্নে একটি বৈঠক হয়। এই বৈঠকের পর স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড নিয়ে অর্থ দপ্তর নতুন ঘোষণা করেছে।

Student Credit Card Update

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড নিয়ে বৈঠক

এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সরকারি আমলা এবং দশটি প্রথম সারির ব্যাংকের উচ্চপদস্থ অফিসার। এই বৈঠকের নেতৃত্ব দেন রাজ্যের অর্থ সচিব। এছাড়া স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড নিয়ে আগামী দিনের দীর্ঘস্থায়ী পরিকল্পনা করছে রাজ্য সরকার। এর আগে মমতা ব্যানার্জি স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডে লোনের পরিমাণ শিক্ষার্থীদের আরো বেশি দেওয়ার জন্য আধিকারিকদের বলেছেন। এর ফলে রাজ্যের আরো বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থীদের স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের আওতায় লোন পাওয়ার বিষয়টি সুনিশ্চিত হয়েছে।

নভেম্বরের মধ্যে ৫০ হাজার স্টুডেন্টদের ক্রেডিট কার্ড প্রদান

রাজ্য সরকার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে রাজ্যের শিক্ষার্থীদের আরো সহজে এডুকেশন লোন দেবে। এখনো পর্যন্ত 35 হাজার শিক্ষার্থীদের স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লোন দেওয়া হয়েছে। আগামী নভেম্বর মাসের মধ্যে রাজ্যের মোট ৫০ হাজার শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার জন্য লোন দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে রাজ্য সরকার। অর্থাৎ আগামি কয়েক মাসের মধ্যে আরো 15 হাজার শিক্ষার্থীদের ক্রেডিট কার্ড দেওয়া হবে। যেসমস্ত শিক্ষার্থীরা স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করেছে এবং এখনো পর্যন্ত এর সুবিধা পায়নি তাদের মধ্যে জেনুইন আবেদনকারীদের লোন দিতে বলা হয়েছে বিভিন্ন ব্যাংক গুলিকে।

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড এর সমস্যার সমাধান

এছাড়া যেসব শিক্ষার্থীরা আবেদন করেছে অথচ তাদের হাতে লোনের টাকা এসে পৌঁছায়নি তা সমাধানের দ্রুত ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এইসব বিষয়ে সরকারি আধিকারিকগণ ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে নির্দিষ্ট সময় সীমা বেধে দেন। তার কারণ হচ্ছে শিক্ষার্থীদের লোনের জন্য বিভিন্ন হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। তাই রাজ্য সরকার বিভিন্ন ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে একটি নির্দিষ্ট সময় বেঁধে দেন। এছাড়া ব্যাংক গুলোকে অভ্যন্তরীণ কমিটি গঠন করে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের সমস্যা সমাধান করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ।

রাজ্য সরকার অনেক আগেই জানিয়ে দিয়েছে, দশম থেকে স্নাতকোত্তর পড়াশোনা করছে এমন শিক্ষার্থীরা যেকোনো সময় এই ঋণ নিতে পারবে। এছাড়া সরকারি বিভিন্ন চাকরি যেমন IAS, IPS, WBCS ইত্যাদির প্রস্তুতি নিতে থাকা এবং Medical, স্নাতক, স্নাতকোত্তর ডিগ্রিতে পাঠরত এবং দেশের বাইরে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে চাইলেও এই লোন দেওয়া হবে। আপনাকে মনে করিয়ে দিই, স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদনকারীর বয়স হতে হবে 40 বছরের কম হতে হবে এবং লোন পরিশোধের মেয়াদ রাখা হয়েছে 15 বছর অর্থাৎ লোন নেওয়ার বছরের মধ্যে তা শোধ করতে হবে।

👉 সরকারি প্রকল্প, সরকারি সুবিধার নতুন নতুন তথ্য মিস না করতে চাইলে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে Join হয়ে থাকুন

🔥 এগুলোও পড়ুন 👇👇

👉 কর্মই ধর্ম প্রকল্পে ২ লক্ষ বেকারদের সুবিধা প্রদান

👉 যুবশ্রী প্রকল্পে বেকাররা পাবে প্রতি মাসে ১৫০০ টাকা

👉 ঘরে বসেই অনলাইনে ভোটার কার্ডের ভুল সংশোধন করুন